শনিবার, ৬ অক্টোবর, ২০১২

পৃথিবীর অনন্য দেশ সমূহঃ পার্ট ২

পৃথিবীর অনন্য দেশ সমূহঃ পার্ট ১

৬. ইউক্রেনঃ দ্রুত হ্রাসপ্রাপ্ত জনসংখ্যার দেশ
ইউক্রেন
প্রাকৃতিক ভাবে বিশ্বের সবচেয়ে দ্রুত হ্রাসপ্রাপ্ত জনসংখ্যার দেশ ইউক্রেন। যার হার বছরে ০.৮%।ইউক্রেন এখন থেকে ২০৫০ সালের মধ্যে তার জনসংখ্যার ২৮% হারাবে। বর্তমানে জনসংখ্যা ৪৬.৮ মিলিয়ন থেকে কমে ২০৫০সালে দাঁড়াবে ৩৩.৪ মিলিয়নে।

৭. নেদারল্যান্ডঃ সমুদ্র সমতল থেকে নিচু দেশ
নেদারল্যান্ড 
নেদারল্যান্ড এর অর্ধেকেরও বেশী অংশ সমুদ্র সমতল থেকে নিচে অবস্থিত। যদি ভয়ানক সব সামুদ্রিক ঝড় বালিয়াড়ি ভেঙ্গে তীরে এসে পরে তাহলে রটারডাম (নেদারল্যান্ড এর দ্বিতীয় বৃহত্তম শহর)  পানিতে ডুবতে ২৪ ঘণ্টা সময়ও লাগবে না। বর্তমানে নেদারল্যান্ড এর ২৭% অংশ সমুদ্র সমতল থেকে নিচে
অবস্থিত। এই অংশে দেশের ৬০% জনসংখ্যার আবাস (১৫.৮ মিলিয়ন)। নেদারল্যান্ডের মোট আয়তন হল যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গ রাজ্য কানেক্টিকাট এবং ম্যাসাচুয়েটস এর সমন্বিত আয়তনের সমান। নেদারল্যান্ড ও লেম্মেফজোর্ড, ডেনমার্ক সমন্বিত ভাবে পশ্চিম ইউরোপের সবচেয়ে নিচুভূমির দাবিদার- প্রিন্স আলেক্সজান্ডার পোল্ডার সমুদ্র সমতল থেকে ২৩ ফিট নিচু।

৮. তাভুলুঃ সবচেয়ে কম পর্যটকের দেশ
তাভুলু 
পৃথিবীর চতুর্থ ছোট দেশ। তাভুলু অস্ট্রলিয়া ও হাওয়াইয়ের এর মধ্যবর্তি অংশে অবস্থিত এবং গোবাল ওয়ার্মিংএর ফলে সমুদ্র সমতল বৃদ্ধি পেলে সমুদ্রে বিলীন হয়ে যাওয়া প্রথম দেশ। তাভুলুতে যাওয়া খুব খরুচে। প্রথমে ফিজিতে যেতে হবেন তারপর সেখান থেকে প্রাইভেট প্লেন ভাড়া করে যেতে হবে তাভুলুতে। তাভুলুতে প্রতি বছর মোট ১১০০জন ট্যুরিস্ট ভ্রমণ করে।

৯. ইন্দোনেশিয়াঃ দ্বীপের দেশ
ইন্দোনেশিয়া 
ইন্দোনেশিয়ায় মোট ১৭,৫০০টি দ্বীপ এবং মোট ৮১,৩৫০ কি.মি. সমুদ্র তীর নিয়ে অবস্থিত। এর মধ্যে প্রায় ৬০০০ দ্বীপে মনুষ্য বসতি আছে। বড় দ্বীপ গুলোর মধ্যে জাভা, সুমাত্রা, বোর্নিও, বালি, লোম্বক এবং ফ্লোরেস অন্যতম। ইন্দোনেশিয়ায় পৃথিবীর মোট কোরাল রীফের ১০-১৫% আছে।

১০. ভারতঃ ভৌগোলিক বৈচিত্রের দেশ
ভারত 
ভারত যে কারনে অন্যদের থেকে আলাদা তা হল ভৌগোলিক বৈচিত্র, প্রাকৃতিক সম্পদ, বিশাল জনসংখ্যা এবং জাতিগত বৈচিত্র। ভারতের মত চরম জলবায়ু অবস্থা খুব কম দেশেই আছে। যখন উত্তর ভারতের লোকেরা ঠান্ডায় থরথর করে কাঁপে তখন দক্ষিণ ভারতের লোকেরা খালিপায়ে হাটে।

Post Comment

কোন মন্তব্য নেই:

একটি মন্তব্য পোস্ট করুন