বুধবার, ২৮ মার্চ, ২০১২

কিভাবে হার্ডওয়্যারের ড্রাইভার খুজে বের করবেন?

আমরা যখন কম্পিউটারের কোন যন্ত্রাংশ কিনি তার সাথে ড্রাইভার সিডি দেওয়া থাকে। আর বাসায় ইন্টারনেট কানেকশন থাকলে সিডি বা ডিভিডি হারিয়ে গেলেও তা কোম্পানির সাইট থেকে ডাউন লোড করে নিতে পারি। যদি এমন হয় যে আপনি ডিভাইটির মডেল বা মেন্যুফেকচারারের নাম জানেন না তখন কি করবেন? আমি এ বিষয়ে একটি উপায় দেখিয়ে দিচ্ছি কি ভাবে ড্রাইভার খুজে বের করবেন!!
 ড্রাইভার


প্রত্যেক ডিভাইসেরই একটি ভেন্ডর ও ডিভাইস আইডি তার সাথে বিল্ডইন দেওয়া থাকে। যদি এই আইডি বের করা যায় তাহলে মেন্যুফেকচারারও বের করা যাবে। এটা উইন্ডোজ থেকেই বের করা যায়।

Post Comment

সোমবার, ১২ মার্চ, ২০১২

প্রথম আলো অ্যাপ অফলাইন ইন্সটলার


ডাউনলোডঃ নোকিয়া মোবাইলের জন্য।

Post Comment

কিভাবে নোকিয়া অভি ষ্টোর থেকে আপনার পিসিতে অ্যাপ্লিকেশন ডাউনলোড করবেন?

আইফোন ষ্টোর, অ্যান্ড্রয়েড মার্কেটপ্লেস, উইন্ডোজ মোবাইল মার্কেটপ্লেস এর মত নোকিয়া ব্যবহারকারীদের জন্য আছে নোকিয়া অভি ষ্টোর। অভি ষ্টোরে আছে বৃহৎ সংখ্যক সিম্বিয়ান অ্যাপ্লিকেশন যার মধ্যে আবার উল্লেখযোগ্য সংখ্যক ফ্রী। কিন্তু সমস্যা হল কোনও অ্যাপ্লিকেশনই আপনি অভি ষ্টোর থেকে পিসিতে ডাউনলোড করে পরে পিসি থেকে মোবাইলে নিতে পারবেন না। যার কারনে যার ইন্টারনেট নেই সে অভি ষ্টোর ব্যবহার করতে পারবে না। এখন আমি দেখাব কিভাবে আপনি পিসিতে অফলাইন অ্যাপ্লিকেশন ইন্সটলার ডাউনলোড করে পরে মোবাইলে ব্যবহার করতে পারবেন।
অভি ষ্টোর
১. প্রথমে আপনার নোকিয়া অভি ষ্টোরে লগইন করুন। যদি একাউন্ট না থাকে নতুন একটা খুলে নিন।

Post Comment

শুক্রবার, ৯ মার্চ, ২০১২

তেলেগু চলচ্চিত্র- পার্ট ২

যারা তেলেগু চলচ্চিত্র নিয়ে আগের পোস্ট পড়েননি তাদের জন্য তেলেগু চলচ্চিত্র- পার্ট ১ লিঙ্ক।


সবাক চলচ্চিত্রের উত্থানঃ ১৯৩১-১৯৪৭
১৯৩১ সালে এইচ.এম রেড্ডির প্রযোজনায় প্রথম সবাক তেলেগু ছবি 'Bhakta Prahlada' তৈরি হয়। টকি নামে
প্রথম সবাক তেলেগু ছবি 'Bhakta Prahlada'  এর দৃশ্য
এই ধরনের ছবি খুব দ্রুত জনপ্রিয়তা পায় এবং সংখ্যায় বাড়তে থাকে। ১৯৩৪ সালে তেলেগু চলচ্চিত্র শিল্প তার প্রথম বানিজ্যিক সাফল্য পায় 'Lavakusa' এর মাধ্যমে। সি.পুল্লাইয়াহ এর পরিচালনায় এতে মূল চরিত্রে
অভিনয় করেন পারুপাল্লি সুব্বারাও ও শ্রীরাঞ্জানী। ছবিটি তখনকার দিনে ব্যাপক জনপ্রিয়তা পায় এবং অগুনিত সংখ্যক মানুষ থিয়েটারে গিয়ে উপভোগ করে। যার ফলে তরুণ তেলেগু চলচ্চিত্র শিল্প প্রতিষ্ঠা পায় ও মূল সংস্কৃতির সাথে মিশে যায়।

Post Comment